ঢাকা অচলের হুমকি সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলসহ কোনো হঠকারী সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে রাজধানী ঢাকা অচল করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আজ সোমবার বেলা ১১টায় ঢাকা কলেজ ক্যাফেটেরিয়ায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেওয়া হয় অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে।

ঢাবির অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ নামের আন্দোলনের সমন্বয়ক এ কে এম আবুবকর সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘পূর্ব পরিকল্পনা ছাড়াই ২০১৭ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ঐতিহ্যবাহী সাত কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যুক্ত করা হয়। অধিভুক্ত হওয়ার পর থেকে নানাবিধ সমস্যা পরিলক্ষিত হচ্ছে।

আবুবকর বলেন, ‘দীর্ঘদিন অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ থাকায় সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা দুই বছর সেশনজটে পড়েছে। এমতাবস্থায় গণতান্ত্রিক পন্থায় নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে অ্যাকাডেমিক সমস্যা সমাধানের জন্য পাঁচ দফা দাবিতে আমরা আন্দোলন করেছি। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে একটি কুচক্রী মহল অধিভুক্তি বাতিলের জন্য আন্দোলন করেছে এবং তা বাতিলের জন্য প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।’

তিনি অভিযোগ করেন, কুচক্রী মহলটির সঙ্গে সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের কোনো সমন্বয় ও সম্পর্ক নেই। এরা একটি বিশৃঙ্খলা তৈরির চেষ্টা করছে। এটি তাদের একান্ত অভ্যন্তরীণ বিষয়। সে বিষয়ে আমাদের কিছু বলার নেই। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা অধিভুক্তি বাতিলের পক্ষে নয়, অধিভুক্তি বাতিল হলে কঠোর আন্দোলনে যাবেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। প্রয়োজনে শিক্ষার্থীরা সেশনজটের দুই বছরের হিসাব মাঠে দাঁড়িয়ে নেবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা কলেজ সমন্বয়ক কাজী নাসির, ইডেন কলেজ সমন্বয়ক ফৌজিয়া মিথিলা, সরকারি তিতুমীর কলেজ সমন্বয়ক মামুন শিকদার, সরকারি বাঙলা কলেজ সমন্বয়ক শহিদুল ইসলাম শাহেদ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ সমন্বয়ক নুরজাহান শিখা, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ সমন্বয়ক আশরাফুল ইসলাম আরিফ, বেগম বদরুন্নেছা সরকারি মহিলা কলেজ সমন্বয়ক সুলতানা পারভীন বৃষ্টি প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *