মাদারীপুরে নার্সিং হোস্টেলে ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ

মাদারীপুর শহরের ইটেরপুল রফিক সুপার মার্কেটের ৩য় তলায় অবস্থিত ডি.ডাব্লিউ.এফ নার্সিং কলেজের ছাত্রীনিবাস থেকে মৌ দত্ত (২০) নামের ডি.ডাব্লিউ.এফ নার্সিং কলেজের এক ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মৌ বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার কাটাদিয়া এলাকার অজিত দত্তের মেয়ে। তিনি মাদারীপুর ডিডব্লিউএফ নার্সিং কলেজের ডিপ্লোমা অ্যান্ড নার্সিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

সহপাঠীদের সুত্রে  জানা যায়, আজ মঙ্গলবার সকালে অন্যান্য ছাত্রীরা ক্লাসে উপস্থিত থাকলেও মৌ কলেজে যায়নি। এ সময় সহপাঠীরা তাকে ডাকতে গেলে দেখেন মৌ তার কক্ষের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছেন। পরে কলেজ থেকে মাদারীপুর সদর থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

কলেজের ইনচার্য মার্গারেট সরজিনী বিশ্বাস বলেন, ‘মৌ খুবই মেধাবী ছাত্রী ছিল। ওরাই এই প্রতিষ্ঠানের প্রথম ব্যাচ। গত দুদিন থেকে সে ক্লাসে অনুপস্থিত ছিল। কী কারণে এমন ঘটছে, তা বলতে পারছি না। আমরাও তার এমন মৃত্যুতে হতবাক।’

মাদারীপুর সদর থানার কর্মকর্তা (ওসি) সওগাতুল আলম গনমাধ্যমকে বলেন, ‘খবর শুনেই আমরা ঘটনাস্থলে যাই। মৌ এর হোস্টেল কক্ষ থেকে আমরা চারটি চিরকুট উদ্ধার করি। একটি চিরকুটে মৌ তাঁর মা-বাবার উদ্দেশে করে কিছু কষ্টের কথা লিখেছেন। অন্য একটি চিরকুটে মৌর রুমমেট শাবনুর ও ঝুমকির উদ্দেশে কিছু কথা লেখা। শেষ চিরকুটে সে অজানা উদ্দেশে প্রেম সংঘটিত কিছু লিখেছে। এসব দেখে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, মৌ পারিবারিক ও প্রেম সংঘটিত কারণে আত্মহত্যা করতে পারে। এরপরও আমরা লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছি।’

সওগাতুল আলম আরো বলেন, উক্ত ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

শাহাদাত হোসেন জুয়েল
মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *